January 21, 2022, 11:46 pm

শিরোনাম :
মুন্সীগঞ্জ‌ে মিরকা‌দিম পৌরবাসীরা কি স্বাস্থ্য সম্মত গরুর মাংস খাচ্ছে? জ্বালানি থেকে বাড়তি টাকা তুলে সড়ক সংস্কার করা হবে নাসিকে ভোটযুদ্ধ আজ ॥ নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা গোটা নির্বাচনী এলাকা বাংলাদেশ থেকে দ্বিগুণ ইন্টারনেট ব্যান্ডউইডথ নেবে ভারত হটলাইনে চার মিনিটেই পর্চা-মৌজা ম্যাপের আবেদন শৈলকুপায় সামাজিক আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে যুবকে পিটিয়ে হত্যা নির্বাচনী সহিংসতায় আহত ব্যক্তির মৃত্যু ঝিনাইদহের শৈলকুপায় নির্বাচনি সহিংসতায় নিহত ৬ লামার কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনে সাড়ে তিন হাজার কন্ঠে উচ্চারিত ‘ইনশাল্লাহ সব সম্ভব’ শত্রুতার আগুনে পুড়ে পুড়ল ৮ দোকান নাইক্ষ্যংছড়ি পাহাড় থেকে অস্ত্র-গুলিসহ ৪ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী গ্রেপ্তার
হরিপুরে বিজিবি কর্তৃক নিরীহ মানুষকে হত্যার প্রতিবাদে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

হরিপুরে বিজিবি কর্তৃক নিরীহ মানুষকে হত্যার প্রতিবাদে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

মো: সবুজ ইসলাম ,রাণীশংকৈল প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলায় হরিপুরে বডার গার্ড বাংলাদেশ ( বিজিবি) সদস্যদের গুলিতে তিনজনকে নৃশংসভাবে হত্যার প্রতিবাদে অপরাধীদের গ্রেফতার ও আইনের আওতায় এনে কঠিন শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে নিহতদের স্বজন ও এলাকাবাসী । বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারী) বিকেলে চাঁবধা বাজার এলাকায় প্রায় ২.৩০ ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন ও বিক্ষোভ র‌্যালী চলে। মানববন্ধন ও বিক্ষোভ র‌্যালীতে নিহতদের আত্মীয়স্বজন,শিক্ষক, ছাত্র সহ এলাকার প্রায় ১৫০০ শত লোকজন অংশগ্রহন করেন। মানববন্ধন ও বিক্ষোভ র‌্যালীতে বক্তব্য রাখেন ৩ নং বকুয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবু তাহের, প্রভাষক সোহেল রানা, শিক্ষক মো: তোহিদুর রহমান লিটন, জহরুল ইসলাম এবং নিহত প্রাইভেট শিক্ষক নবাব এর শিক্ষার্থী সোহাগী ও সুরভীসহ অনেকে। মানববন্ধনে অংশগ্রহনকারী ব্যক্তিরা বলেন, আমাদের হরিপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকার মানুষেরা চোর না ,আমরা কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করি । কি দোষ ছিল আমাদের এই মানুষদের? কেন হত্যাকরা হল আমাদের এলাকার এই তিন নিরিহ মানুষকে। আমরা জানতে চাই। নৃশংসভাবে হত্যাকারী বিজিবি সদস্যদের ফাঁসি চাই। নিহত প্রাইভেট শিক্ষক নবাব সমন্ধে তার শিক্ষার্থীরা বলেন আমাদের স্যার অনেক ভাল একজন স্যার ছিলেন । তিনি আমাদের বিনামূল্যো প্রাইভেট পড়াতেন । আমরা আমাদের স্যারসহ তিনজনকে নৃশংসভাবে হত্যাকারী বিজিবি সদস্যদের শাস্তি চাই। শুধু সোহাগী ও সুরভীকে নয় এদের মতো প্রায় ১২০ জন ছাত্র/ছাত্রীদেরকে বিনামূল্যো প্রাইভেট পড়াতেন। বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে মরদেহগুলোর ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে সেগুলো পরিবারের কাছে হশতান্তর করা হয়। এ সময় বহরমপুর ও রুহিয়া গ্রামে শোকের ছায়া নেমে আসে। পরিবারের লোকদের কান্নায় চারপাশের বাতাস ভারি হয়ে ওঠে।
এদিকে সকালে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিহতদের পরিবারকে লাশ দাফনের জন্য ২০ হাজার টাকা করে দিয়েছেন জেলা প্রশাসক ডা. কামরুজ্জামান সেলিম।
উল্লেখ্য যে,গত মঙ্গলবার(১২ ফেব্রুয়ারী) বহরমপুর গ্রামের এক ব্যক্তি সকালে গরু নিয়ে যাদুরানী বাজারের উদ্দেশ্যে বের হন গরু বিক্রি করার জন্য। ওই গরু পাচার করে আনা হয়েছে সন্দেহে বেতনা ক্যাম্পের বিজিবি সদস্যরা তা জব্দ করতে গেলে এলাকাবাসীর সঙ্গে সংঘর্ষ বাঁধে। এতে বকুয়া ইউনিয়নের রুহিয়া গ্রামের নজরল ইসলামের ছেলে নবাব (৩০) ও সাদেক মিয়া (৪৫) এবং বহরমপুর গ্রামের নূর ইসলামের ছেলে ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী জয়নুল (১২) নিহত হয়। এবং গুলি বৃদ্ধ হয় আরও ১৫ জন।

শেয়ার করুন




গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে বিধি মোতাবেক আবেদিত
Design & Developed BY ThemesBazar.Com