January 23, 2022, 2:44 am

শিরোনাম :
নিয়োগের চূড়ান্ত সুপারিশপত্র পেলেন ৩৪ হাজার ৭৩ জন শিক্ষক মুন্সীগঞ্জ‌ে মিরকা‌দিম পৌরবাসীরা কি স্বাস্থ্য সম্মত গরুর মাংস খাচ্ছে? জ্বালানি থেকে বাড়তি টাকা তুলে সড়ক সংস্কার করা হবে নাসিকে ভোটযুদ্ধ আজ ॥ নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা গোটা নির্বাচনী এলাকা বাংলাদেশ থেকে দ্বিগুণ ইন্টারনেট ব্যান্ডউইডথ নেবে ভারত হটলাইনে চার মিনিটেই পর্চা-মৌজা ম্যাপের আবেদন শৈলকুপায় সামাজিক আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে যুবকে পিটিয়ে হত্যা নির্বাচনী সহিংসতায় আহত ব্যক্তির মৃত্যু ঝিনাইদহের শৈলকুপায় নির্বাচনি সহিংসতায় নিহত ৬ লামার কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনে সাড়ে তিন হাজার কন্ঠে উচ্চারিত ‘ইনশাল্লাহ সব সম্ভব’ শত্রুতার আগুনে পুড়ে পুড়ল ৮ দোকান
আলীকদমে সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতিকে মারধর, বিএনপির ৬০ নেতাকর্মীর নামে মামলা

আলীকদমে সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতিকে মারধর, বিএনপির ৬০ নেতাকর্মীর নামে মামলা

হিল্লোল দত্ত,আলীকদম প্রতিনিধি : বান্দরবানের আলীকদমে স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতিকে মারধর ও ভাংচুরের অভিযোগ এনে বিএনপির ৩৫ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাতনামা আরও ২৫ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। চৈক্ষ্যং ইউনিয়ন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সজীব কামালকে মারধরের ঘটনায় সাধারণ সম্পাদক মো. ইউনুচ বাদী হয়ে শনিবার (২২ ডিসেম্বর) রাতে এই মামলা করে। আহত সজীব কামাল (৩২) ২নং চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের চিনারী দোকান এলাকার মৃত মোস্তফা কামালের ছেলে।


মামলার বাদী মো. ইউনুচ বলেন, শুক্রবার (২১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের চিনারী দোকান এলাকায় গণসংযোগ করে বিএনপির নেতাকর্মীরা। তখন বিএনপির নেতাকর্মীরা আওয়ামীলীগের নামে বাজে বাজে মন্তব্য সহ বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর নামে কটুক্তি করে। এসময় ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সজীব কামাল প্রতিবাদ করায় একপর্যায়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের সাথে বাকবিতন্ডা হয়। পরদিন এ ঘটনার জের ধরে শনিবার (২২ ডিসেম্বর) সকালে সজীব কামাল বাড়ি থেকে বের হয়ে নির্ধারিত নির্বাচনী প্রচারনায় যাওয়ার সময় চিনারী দোকান এলাকার বিশ মাইল নামক স্থানে পৌছালে আগে থেকে উৎ পেতে থাকা বিএনপির নেতাকর্মীরা তাকে মারধর করে। পরে সজীব কামালকে উদ্ধার করে আলীকদম হাসপাতালে আনা হলে জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত ডাক্তার প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করে। সজীব কামাল বর্তমানে সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
আলীকদম থানার তদন্ত (ওসি) কানন চৌধুরী বলেন, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতিকে মারধর ও ভাংচুরের অভিযোগে দলের সাধারণ সম্পাদক মো. ইউনুচ বাদী হয়ে স্থানীয় বিএনপির ৩৫ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরও ২০ থেকে ২৫ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলাটি ১৪৩, ৪৪৮, ২৯০, ৩২৩, ৩২৬, ৩৪১, ৪২৭ ও ৫০৬ ধারায় এজাহার ভুক্ত করা হয়েছে। আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন




গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে বিধি মোতাবেক আবেদিত
Design & Developed BY ThemesBazar.Com